Home / শিক্ষা / আমেরিকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১০ লক্ষাধিক বিদেশি ছাত্র

আমেরিকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১০ লক্ষাধিক বিদেশি ছাত্র

a609গত শিক্ষাবর্ষে ১০ লাখেরও অধিক বিদেশি ছাত্র-ছাত্রী এসেছেন আমেরিকার সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উচ্চ শিক্ষার জন্য। এদের সিংহভাগই লেখাপড়া করছেন ক্যালিফোর্নিয়ার শীর্ষস্থানীয় ৫ ইউনিভার্সিটিতে। এগুলো হচ্ছে ইউনিভার্সিটি অব সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া-১৩৩৪০, ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার লসএঞ্জেলেস ক্যাম্পাস-১১৫১৩। ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার অপর ৩ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হচ্ছে সানদিয়েগো, বার্কলে এবং আরভিন। আগের শিক্ষা বর্ষের চেয়ে গত শিক্ষাবর্ষে এই রাজ্যে বিদেশি শিক্ষার্থী বাড়ে ১০.৫ শতাংশ।

ইন্সটিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল এডুকেশনের কাউন্সেলর পেগী ব্লুমেন্থাল বলেছেন, ক্যালিফোর্নিয়া হচ্ছে উচ্চ শিক্ষার প্রাণকেন্দ্র। বিশ্বব্যাপী রয়েছে এর নেটওয়ার্ক।’ স্টেট ডিপার্টমেন্টে শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক দফতরের পদস্থ এই কর্মকর্তা মনে করেন, আন্তর্জাতিক শিক্ষা ব্যবস্থায়ও ক্যালিফোর্নিয়ার গুরুত্ব বাড়ছে। এই রাজ্যে শুধুমাত্র যে খ্যাতনামা পাবলিক ইউনিভার্সিটি রয়েছে বললে সঠিক বলা হবে না, প্রাইভেট ইউনিভার্সিটিও রয়েছে অনেক। যতটা আমার মনে পড়ে, ইউনিভার্সিটি অব সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া বরাবরই বিদেশি শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে হয়তো শীর্ষে, অথবা দ্বিতীয়।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, গত এক দশকে যুক্তরাষ্ট্রে উচ্চ শিক্ষার জন্য আগত বিদেশি ছাত্র-ছাত্রীদের সংখ্যা বেড়েছে ৮৫ শতাংশ। আর এদের ৩৩ শতাংশেরও অধিক পড়েন ইঞ্জিনিয়ারিং কিংবা অংক অথবা কম্পিউটার সায়েন্স। আর এভাবেই বিদেশি ছাত্র-ছাত্রীদের গবেষণাকর্ম বিশেষ অবদান রাখছে যুক্তরাষ্ট্রের শ্রেষ্ঠত্ব অক্ষুন্ন রাখতে। গত বছর এসব বিদেশি ছাত্ররা ব্যয় করেছেন ৩৫ বিলিয়ন ডলার। এর মধ্যে কমপক্ষে ৫ বিলিয়ন ব্যয় হয় ক্যালিফোর্নিয়ায়। মার্কিন অর্থনীতির চাকা গতিশীল রাখতেও তারা অপরিসীম ভূমিকা রাখছেন বলে মার্কিন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় মনে করছেন। শুধু তাই নয়, পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়নেও বিদেশি ছাত্র-ছাত্রীরা বিশেষ ভূমিকা রাখছেন বলে উল্লেখ করা হয় স্টেট ডিপার্টমেন্টের রিপোর্টে।

স্টেট ডিপার্টমেন্টের তথ্য অনুযায়ী, সবচেয়ে বেশী ছাত্র-ছাত্রী আসছে চীন থেকে ৩১.৫ শতাংশ। দ্বিতীয় শীর্ষে রয়েছে ভারত ১৫.৯ শতাংশ। সৌদি আরব ৫.৯ শতাংশ, দক্ষিণ কোরিয়া ৫.৮ শতাংশ, কানাডা ২.৬ শতাংশ, ভিয়েতনাম ২.১ শতাংশ, তাইওয়ান শতাংশ, ব্রাজিল শতাংশ, জাপান শতাংশ এবং মেক্সিকো শতাংশ। তবে শীর্ষে অবস্থানকারিী ১০ দেশের মধ্যে নেই বাংলাদেশ।

নিউইয়র্ক সিটিও আন্তর্জাতিক ছাত্র-ছাত্রী গ্রহণে কার্পণ্য করে না। নিউইয়র্ক ইউনিভার্সিটিতে গত শিক্ষাবর্ষেও ১৫ হাজার ৫৪৩ জন বিদেশি ছাত্র-ছাত্রী এসেছেন। কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি হয়েছেন ১২হাজার ৭৪০ জন।
আমেরিকান ছাত্র-ছাত্রীরাও উচ্চ শিক্ষার জন্যে বিদেশ যাচ্ছে। গ্র্যাজুয়েশনের সহায়ক বিভিন্ন কোর্সের জন্যে বিদেশে অবস্থানকারী মার্কিন ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা মোট ২ লাখ ৭৫ হাজার  অর্থাৎ একাডেমিক ক্রেডিটের জন্যে বিদেশ-প্রীতি রয়েছে আমেরিকান ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যেও।

Check Also

রুয়েট উপাচার্য ২৪ ঘণ্টা অবরুদ্ধ

রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) উপাচার্য অধ্যাপক রফিকুল আলম বেগকে প্রায় ২৪ ঘণ্টা অবরুদ্ধ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.