Home / আন্তর্জাতিক / ট্রাম্পকে হিটলারের সঙ্গে তুলনা করেছেন এক জার্মান নাগরিক

ট্রাম্পকে হিটলারের সঙ্গে তুলনা করেছেন এক জার্মান নাগরিক

a348মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে এক জার্মান নাগরিকের টুইটার বার্তা এখন ইন্টারনেটে ভাইরাল। তিনি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অ্যাডলফ হিটলারের সাথে তুলনা করেছেন। ১৯৩০ এর দশকে হিটলার একই স্টাইলে তার চ্যান্সেলর নির্বাচনের প্রচারণা চালিয়েছিলেন বলে ইঙ্গিত করেছেন।

জোহান ফ্রাঙ্কলিন নামে ওই ব্যক্তি গত শুক্রবার জার্মানির জনগণের পক্ষ থেকে আমেরিকানদের উদ্দেশে তিনি এই নোট লেখেন। ট্রাম্পের মতো লোককে ভোট দিলে কতোটা ভুল সিদ্ধান্ত হবে সেদিকেই ইঙ্গিত করেন তিনি।

হ্যাশট্যাগ সম্বলিত নোটটি কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ভাইরাল হয়ে গেছে। হিটলারের সাথে ট্রাম্পের তুলনা করে তৈরি মেমেতে ভরে গেছে ভার্চুয়াল জগৎ।

ফ্রাঙ্কলিন লিখেছেন, ডিয়ার আমেরিকান, আগে বাড়ো, উচ্চস্বরে কথা বলা ওই লোকটাকে ভোট দাও যে সংখ্যালঘুদের ঘৃণা করে, বিরোধী পক্ষকে জেলে ভরার হুমকি দেয়, গণতন্ত্রের জন্য…করে না এবং দাবি করে যে সে একাই সব ঠিকঠাক করে দেবে।…

তবে এ নিয়ে তীব্র সমালোচনাও চলছে। এ ধরনের তুলনা করার সমালোচনা করছেন অনেকে। অনেকে বলছেন, এটা মানহানীকর।

ফ্রাঙ্কলিন জার্মান নাগরিক হলেও তিনি কাজ করেন মূলত ক্যালিফোর্নিয়ার স্যান ডিয়েগোতে আইটি কনসালটেন্ট হিসেবে।

সমালোচনার জবাবে অবশ্য তিনি বলেছেন, ট্রাম্পকে হিটলারের সাথে তুলনা করা হয়েছে- নোটটি পড়ে অনেকে এমন অভিযোগ করছেন- নোটটি একেবারেই স্থূলভাবে দেখার জন্য এটা হচ্ছে। তবে ‍দু’জনের মধ্যে কিছু জায়গায় বেশ মিল রয়েছে এটা সত্য।

তিনি বলেন, আমার বন্ধুদের মধ্যে যারা ট্রাম্পের সমর্থক তাদের সাথে কথা বলতে গিয়ে সত্যিই ভয় পেয়ে গেছি। তাদের সাথে কথা বললে, ১৯৩০ এর দশকে জার্মানিতে আমার দাদা-নানারা যখন বাড়িতে এসে তখনকার অবস্থা বর্ণনা করতেন আমার সেইসব কথা মনে পড়ে যায়।

ফ্রাঙ্কলিনের পোস্টটি ভাইরাল হয় মূলত হিলারির একজন সমর্থক সেটি শেয়ার করলে। অবশ্য তিনি স্বীকার করেছেন, তার নোটটি ট্রাম্প শিবিরে তেমন গুরুত্ব পায়নি। তাতে কি? লোকজন যে হারে তার নোটটি নিয়ে আলোচনা করছে তাতেই সন্তুষ্ট ফ্রাঙ্কলিন। তিনি এই তর্ককে সভ্যতার বিকাশ হিসেবেই দেখছেন।সূত্র: বিবিসি

 

Check Also

রাখাইন সমুদ্রবন্দরের ৭০ শতাংশ দখলে নিচ্ছে চীন

মিয়ানমারের রাখাইনে গভীর সমুদ্রবন্দরের ৭০ শতাংশ অংশীদারিত্ব নিচ্ছে চীন। কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ এই বন্দর বিষয়ে ইতোমধ্যে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.