Home / on-scroll / নব্য জেএমবির মূল অর্থ জোগানদাতা আব্দুর রহমানের স্ত্রী র‌্যাব হেফাজতে

নব্য জেএমবির মূল অর্থ জোগানদাতা আব্দুর রহমানের স্ত্রী র‌্যাব হেফাজতে

rumi-rab-bg20161014021031র‌্যাবের অভিযানে নিহত নব্য জেএমবি নেতা ও মূল অর্থ জোগানদাতা আব্দুর রহমানের স্ত্রী শাহনাজ আক্তার রুমিকে র‌্যাব হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

পাঁচ দিনের রিমান্ড চলা অবস্থায় তিনদিনের মাথায় তাকে হেফাজতে নিলো র‌্যাব। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী এই এলিট ফোর্সই এখন রুমিকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে।

এছাড়াও ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলার তদন্তভারও র‌্যাবে হস্তান্তর করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

র‌্যাব সদর দপ্তরের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মামলার তদন্তভার এবং দুই সন্তান সহ রুমিকে র‌্যাবে হস্তান্তর করা হয়।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১১ টার দিকে আশুলিয়া থানার  উপ পরিদর্শক  (এসআই) মোরশেদ আলী মোল্লা নতুন তদন্তকারী অফিসার র‌্যাব -৪ এর নবীনগর ক্যাম্পের সহকারী পুলিশ সুপার উনুমং এর নেতৃত্বাধীন একটি দলের কাছে রুমিকে হস্তান্তর করেন।ঃ

আশুলিয়া থানার  উপ পরিদর্শক  (এসআই) মোরশেদ আলী মোল্লা বাংলানিউজকে জানান, র‌্যাবের সদর দপ্তরের আবেদনে প্রেক্ষিতে উর্ধ্বতন কর্মকর্তার সাথে কথা বলে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তবে তদন্ত শেষে তদন্ত রিপোর্ট ও রুমিসহ সন্তানদের পূনরায় থানায় হস্তান্তর করা হবে বলে জানান তিনি।

এছাড়া র‌্যাবের করা দুটি মামলার আদলতের দেওয়া পাঁচ দিনের রিমান্ডের বাকি দুই দিন র‌্যাব জিজ্ঞাসাবাদ করবে বলেও জানান তিনি। শনিবার বিকেলে আশুলিয়ার বাইপাইল এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৩০ লাখ টাকা, অস্ত্র, বিস্ফোরকসহ তিন সন্তান ও রুমি কে আটক করে র‌্যাব। এ অভিযানে নব্য জেএমবি নেতা ও মূল অর্থ জোগান দাতা আব্দুর রহমান মারা যান । পরে রবিবার র‌্যাব অস্ত্র আইন এবং সন্ত্রাসদমন ও বিস্ফোরক আইনে আশুলিয়া থানায় রুমির বিরুদ্বে দুটি মামলা করে। পরে ২০ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে আদালত ৫ দিন করে মোট ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। যেহেতু মামলা দুটির একমাত্র আসামি তাই দুটি মামলার ৫ দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। পরে রিমান্ডের তিন দিনের মাথায় র‌্যাবকে তদন্তভার দেওয়া হয়।

Check Also

হাসপাতালে টাকা দিতে না পারায় খোলা স্থানে সন্তান প্রসব

হাসপাতাল চত্বরে প্রসব বেদনায় চিৎকার করছেন এই নারী। অনেকেই দেখছেন, কিন্তু কেউ এগিয়ে আসছেন না। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.