Home / on-scroll / বৃৃষ্টি থাকবে আরো কয়েকদিন, সাগরে নিম্নচাপ- ৩ নম্বর সতর্কতা

বৃৃষ্টি থাকবে আরো কয়েকদিন, সাগরে নিম্নচাপ- ৩ নম্বর সতর্কতা

a255সাগরে নিম্নচাপের প্রভাবে গতকাল শুক্রবার সকাল থেকে ঢাকা, চট্টগ্রামসহ সারা দেশে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস বলছে, নিম্নচাপের কারণে আজ শনিবার দেশের বিভিন্ন স্থানে গুঁড়িগুঁড়ি বা মাঝারি বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে। দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও সংলগ্ন এলাকায় সৃষ্ট নিম্নচাপের কারণে সাগর উত্তাল। তাই চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা বন্দরকে ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত দিয়ে রেখেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। নিম্নচাপের প্রভাবে বৃষ্টি বাগড়া দিয়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) প্রথম ম্যাচে।

আবহাওয়ার খবর জানতে চাইলে আবহাওয়া কর্মকর্তা আরিফ হোসেন জানান, পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তত্সংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত নিম্নচাপটি উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে। এটি এখনো নিম্নচাপ অবস্থায় রয়েছে। নিম্নচাপের প্রভাবে আজ দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হতে পারে বলে জানান তিনি। এবং বৃষ্টির এই ধারা আরো কয়েকদিন অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্র বলছে, নিম্নচাপের পর গভীর নিম্নচাপ, এরপর তা ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেয়। গতকাল দুপুর ১২টায় নিম্নচাপটি চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ৩৫ কিলোমিটার পশ্চিম-দক্ষিণ পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৯৫ কিলোমিটার পশ্চিম-দক্ষিণ পশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, চলতি মাস নভেম্বরে দু-একটি ঘূর্ণিঝড় আসতে পারে। সাধারণত নভেম্বরে ঘূর্ণিঝড় হওয়ার আশঙ্কা প্রবল থাকে। উদাহরণ দিয়ে অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা বলছেন, সিডর হয়েছিল এই নভেম্বর মাসে। প্রথমে নিম্নচাপ তৈরি হয়ে সেখান থেকে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে। তবে গতকাল তৈরি হওয়া নিম্নচাপটি এখনো ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেয়নি।

এদিকে সাগরে নিম্নচাপের প্রভাবে গতকাল সিলেটে ২৭ মিলিমিটার, কুতুবদিয়ায় ১৫ মিলিমিটার, রাঙামাটিতে ১৯ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। এ ছাড়া চাঁদপুরে ১৬ মিলিমিটার, পটুয়াখালীতে ১৯ মিলিমিটার ও ঢাকায় দুই মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

এদিকে সাগর উত্তাল থাকায় বন্দরগুলোতে ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার সব নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। সেই সঙ্গে তাদের গভীর সাগরে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়ার আকারে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছিল। নিম্নচাপটি আরো ঘনীভূত হয়ে উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে। নিম্নচাপটির প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগরে গভীর সঞ্চারণশীল মেঘমালার সৃষ্টি হচ্ছে। আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তত্সংলগ্ন বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্রবন্দরগুলোর ওপর দিয়ে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

Check Also

হাসপাতালে টাকা দিতে না পারায় খোলা স্থানে সন্তান প্রসব

হাসপাতাল চত্বরে প্রসব বেদনায় চিৎকার করছেন এই নারী। অনেকেই দেখছেন, কিন্তু কেউ এগিয়ে আসছেন না। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.