Home / on-scroll / রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ দলগুলোর মতৈক্য জরুরি

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ দলগুলোর মতৈক্য জরুরি

দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় ইস্যুতে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে মতৈক্য হওয়া অত্যন্ত জরুরি বলে মনে করেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। পরবর্তী নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠন নিয়ে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর মতামত গ্রহণে সোমবার বঙ্গভবনে বাসদ ও জাসদের প্রতিনিধিদল তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বঙ্গভবনের দরবার হলে অনুষ্ঠিত এ সাক্ষাৎ পর্বে বাসদের ১০ সদস্যের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন দলের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান। ৩০ মিনিটের ওই আলোচনায় বাসদ সার্চ কমিটি ও নতুন ইসি গঠনের বিষয়ে পাঁচ দফা প্রস্তাব পেশ করে। এর মধ্যে রয়েছে-নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের জন্য সংবিধান অনুযায়ী আইন প্রণয়ন, বর্তমান পাঁচ সদস্যের বদলে নয় সদস্যের ইসি গঠন, জাতীয় বাজেটে ইসির জন্য পৃথক বরাদ্দ দান এবং যারা দেশের সংবিধানের চার মূলনীতিতে বিশ্বাসী তাদেরই নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নিয়োগ দান করা।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ইসি গঠন বিষয়ে গঠনমূলক প্রস্তাব দেওয়ার জন্য বিএসডি প্রতিনিধিদলকে ধন্যবাদ জানান। পরে বঙ্গভবনের দরবার হলে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের (আম্বিয়া) প্রতিনিধিদলের সদস্যরা। ৩৫ মিনিটের ওই বৈঠকে জাসদও একটি সার্চ কমিটি ও পাঁচ দফা প্রস্তাব দেয়। তারা সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানসমূহের প্রধান ও সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনারদের নিয়ে একটি সার্চ কমিটি গঠনের প্রস্তাব দেন।

অন্যান্য প্রস্তাবে রয়েছে-ইসির ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পর্যায়ক্রমে নির্বাচন কমিশনারদের নিয়োগ দান এবং প্রশাসনিক অভিজ্ঞ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসীদের নিয়ে ইসি গঠন করা। রাষ্ট্রপতির উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে প্রতিনিধিদলের সদস্যরা বলেন, এ উদ্যোগ জনমতে একটা প্রত্যাশা সৃষ্টি করেছে। আমাদের বিশ্বাস রাষ্ট্রপতি একটা শক্তিশালী ও গ্রহণযোগ্য ইসি গঠনের মাধ্যমে এ প্রত্যাশা পূরণে সক্ষম হবেন।

আবদুল হামিদ বলেন, ইসির উপর সাধারণ মানুষের আস্থা ও বিশ্বাসের গুরত্বপূর্ণ বিষয় হলো একটি অবাধ নির্বাচন অনুষ্ঠান এবং আমি আশা করি-এ ক্ষেত্রে রাজনৈতিক দলগুলোর মতামত ও প্রস্তাবসমূহ একটা ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। এ সময় রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট সচিবরা উপস্থিত ছিলেন। গত বছরের ১৮ ডিসেম্বর বিএনপির সঙ্গে আলোচনা শুরুর মাধ্যমে ইসি গঠন নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আনুষ্ঠানিক আলোচনার সূচনা করেন রাষ্ট্রপতি। আগামী ফেব্রুয়ারিতে কাজী রকিবউদ্দিন আহমদের নেতৃত্বাধীন ইসির মেয়াদ শেষ হওয়ার প্রেক্ষাপটে তিনি এ সংলাপের উদ্যোগ নিয়েছেন।

Check Also

হাসপাতালে টাকা দিতে না পারায় খোলা স্থানে সন্তান প্রসব

হাসপাতাল চত্বরে প্রসব বেদনায় চিৎকার করছেন এই নারী। অনেকেই দেখছেন, কিন্তু কেউ এগিয়ে আসছেন না। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.