Home / on-scroll / শেষকৃত্য সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে গ্রামের বাড়িতে অনুষ্ঠিত হবে

শেষকৃত্য সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে গ্রামের বাড়িতে অনুষ্ঠিত হবে

রাজধানী ঢাকা, সিলেট ও সুনামগঞ্জে শ্রদ্ধা জানানোর পর সোমবার (ফেব্রুয়ারি ০৬) সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে গ্রামের বাড়িতে অনুষ্ঠিত হবে সদ্যপ্রয়াত সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের শেষকৃত্য। রোববার (ফেব্রুয়ারি ০৫) সকালে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে বিষয়টি সাংবাদিকদের জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের মরদেহে শ্রদ্ধা প্রদর্শন এবং তার শেষকৃত্যের ব্যাপারে পরিবারের সঙ্গে আলোচনা করে একটি সময়সূচি তৈরি করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীকেও বিষয়টি অবগত করা হয়েছে।

কিছুক্ষণের মধ্যেই সুরঞ্জিত সেনের মরদেহকে জিগাতলায় তার বাসায় নেয়া হবে। সেখান থেকে দুপুর বারোটার সময় তার মরদেহ ঢাকেশ্বরী মন্দিরে নেয়া হবে। সেখান থেকে দুপুর তিনটার সময় নেয়া হবে সংসদ ভবনে। সেখানে তার মরদেহে শ্রদ্ধা জানাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর মরদেহ হিমঘরে রাখা হবে। পরদিন (সোমবার) সকাল নয়টায় হেলিকপ্টারে করে মরদেহ সিলেটের উদ্দেশে নেয়া হবে। দশটায় সিলেটে মরদেহে শ্রদ্ধা প্রদর্শনের পর সাড়ে এগারোটায় মরদেহ নেয়া হবে সুনামগঞ্জে। সেখান থেকে মরদেহ শাল্লা নেয়া হবে দেড়টায়। সবশেষ বেলা তিনটায় মরদেহ পৌঁছাবে দিরাইয়ে। সেখানেই তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

এর আগে রোববার (ফেব্রুয়ারি ০৫) ভোর ৪টা ২৪ মিনিটে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন প্রবীণ এই রাজনীতিক।

দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন দেশের প্রবীণ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত। শুক্রবার সঙ্কটাপন্ন অবস্থায় তাকে ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার আরও অবনতি ঘটলে শনিবার রাতে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়।

১৯৪৬ সালে সুনামগঞ্জের দিরাইয়ের আনোয়ারাপুরে জন্ম নেন সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত। মোট সাতবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এই প্রবীণ পার্লামেন্টারিয়ান। ১৯৯৬ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংসদ বিষয়ক উপদেষ্টা ছিলেন তিনি। ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ দ্বিতীয়বারের মতো ক্ষমতায় আসার পর তিনি রেলমন্ত্রী হন। পরবর্তীতে তাকে দফতরবিহীন মন্ত্রী করা হয়।

সুরঞ্জিত সেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন। সেন্ট্রাল ল’ কলেজ থেকে এলএলবি পাশের পর আইন পেশায় যুক্ত হন তিনি।

বর্তমান সংসদের আইন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি ছিলেন সুরঞ্জিত সেন। একই সঙ্গে সুপ্রিম কোর্ট বার কাউন্সিলেরও সদস্য ছিলেন তিনি।

Check Also

হাসপাতালে টাকা দিতে না পারায় খোলা স্থানে সন্তান প্রসব

হাসপাতাল চত্বরে প্রসব বেদনায় চিৎকার করছেন এই নারী। অনেকেই দেখছেন, কিন্তু কেউ এগিয়ে আসছেন না। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.