Home / on-scroll / সরকারি সুবিধাভোগী নন খালেদা, নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা নেই

সরকারি সুবিধাভোগী নন খালেদা, নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা নেই

n03সরকারি সুবিধাভোগী না হওয়ায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক)নির্বাচনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার প্রচারণা চালাতে কোন বাধা নেই বলেও জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন সচিব মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ।

রবিবার দুপুরে ইসির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব তথ্য জানান।

কমিশন সচিব জানান, নির্বাচনের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে সংস্থাগুলো শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে আগামী ১৪ ডিসেম্বর ইসি বৈঠক করবে।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন উপলক্ষে এলাকায় উৎসবমুখর পরিস্থিতি বিরাজ করছে। সেখানে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কোন কোন বাহিনীকে ব্যবহার করা হবে তা ১৪ ডিসেম্বরই জানা যাবে।

ইসি সচিব আরও জানান, নির্বাচনি এলাকায় বৈধ অস্ত্র জমা দেওয়া, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা নিশ্চিতে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী যথাসময়ে এ বিষয়ে কার্যকরী উদ্যোগ নেবেন।

সম্প্রতি গণভবনে নাসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ও সংসদ সদস্যদের অংশ নেওয়া নিয়ে বিএনপির আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, আমার মনে হয় না এতে আচরণবিধি লঙ্ঘন হয়েছে। এর ব্যাখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে ঘরোয়া মিটিং করতেই পারে। এটা তো নির্বাচনি এলাকায় হয়নি। নির্বাচনি এলাকায় মন্ত্রী-এমপিরা এ ধরনের বৈঠক করতে পারবেন না, প্রচারণা চালাতে পারবেন না। তারা শুধু নিজের ভোট দিতে যেতে পারবেন।

সরকারি সুবিধাভোগী না হওয়ায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার এ নির্বাচনি  প্রচারণায় অংশ নিতে কোনও বাধা থাকছে না বলেও জানান কমিশন সচিব।

২২ ডিসেম্বর দলীয়ভাবে নারায়ণগঞ্জে সিটি নির্বাচন হচ্ছে। এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ ৮টি দলের প্রার্থী মেয়র পদে অংশ নিচ্ছে। সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে নির্দলীয়ভাবে ভোট হবে। ৫ ডিসেম্বর থেকে আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু করতে পারবেন প্রার্থীরা।

এদিকে সংবাদ সম্মেলনে চলমান ভোটার তালিকা হালনাগাদ ও স্মার্টকার্ড বিতরণের সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরেন ইসি সচিব। বাদ পড়া ভোটারদের ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত উপজেলা নির্বাচনি অফিসে গিয়ে ভোটার হওয়ার অনুরোধ করেন তিনি।

Check Also

হাসপাতালে টাকা দিতে না পারায় খোলা স্থানে সন্তান প্রসব

হাসপাতাল চত্বরে প্রসব বেদনায় চিৎকার করছেন এই নারী। অনেকেই দেখছেন, কিন্তু কেউ এগিয়ে আসছেন না। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.