Home / আন্তর্জাতিক / হলিউড তারকারা কে কাকে ভোট দিলেন

হলিউড তারকারা কে কাকে ভোট দিলেন

a421যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হলিউডের প্রথম সারির তারকাদের সমর্থন ডেমোক্রেট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের বিজয়ী হওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলো। মনে হচ্ছিলো সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনের অর্ধাঙ্গিনী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় হোয়াইট হাউসের পথ ধরবেন।

বিখ্যাত তারকারা রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের চেয়ে হিলারিকেই ভোট দিয়েছেন বেশি। কিন্তু ফলাফল দেখে মনে হচ্ছে নির্বাচন আর জনপ্রিয়তা এক বিষয় না। সত্যিকার অর্থেই জনপ্রিয়তা নির্বাচনে জয়ের ট্রাম্পকার্ড না! একনজরে জেনে নিন হলিউডের কে কোন প্রার্থীকে সমর্থন ও ভোট দিয়েছেন।

বিশ্বসংগীতের প্রভাবশালী দম্পতি বিয়ন্সে নোলস ও জে-জি ওহাইওর ক্লিভল্যান্ডে হিলারির পক্ষে কনসার্ট করেন। ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলেসে গত এপ্রিলে নিজেদের অট্টালিকায় হিলারি ক্লিনটনের জন্য অর্থতহবিলং সংগ্রহের অনুষ্ঠান আয়োজন করে আরেক দম্পতি অভিনেতা জর্জ ক্লুনি ও আইনজীবী আমাল আলামুদ্দিন। এর পরের মাসে কান চলচ্চিত্র উৎসবে ক্লুনি সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হতে পারবেন না।’

একাধিকবার অস্কারজয়ী অভিনেত্রী মেরিল স্ট্রিপ ২০১২ সালে ‘ওম্যান অব দ্য ওয়ার্ল্ড’ বলে হিলারি ক্লিনটনকে সমর্থন জানান। ডেমোক্রেটিক ন্যাশনাল কনভেনশনে হিলারির পক্ষে বক্তব্য রাখেন তিনি। বক্তৃতায় মেরিল বলেন, ‘নভেম্বরে হিলারি ক্লিনটনকে আমাদের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মাধ্যমে আবার ইতিহাস সৃষ্টি করুন।’

হিলারি ক্লিনটনের প্রেসিডেন্ট হওয়ার সম্ভাবনা উল্লেখ করে টক শো উপস্থাপিকা অপরাহ উইনফ্রে বলেন, ‘নারীদের জন্য এটা হবে দারুণ ব্যাপার। আমাদের সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় এখনই। আমি আছি তার সঙ্গে।’

গত ৭ নভেম্বর হলিউড ফিল্ম অ্যাওয়ার্ডসে ‘দ্য কমেডিয়ান’ ছবির জন্য পুরস্কার জিতে রবার্ট ডি নিরো মন্তব্য করেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প জিতলে তা হবে ট্র্যাজেডি। তাকে স্ট্যানলি কুবরিকের ধ্রুপদি ছবি ‘ড. স্ট্রেঞ্জলাভ’-এর উন্মাদ চরিত্র জেনারেল জ্যাক ডি রিপারের সঙ্গে তুলনা করেন এই বর্ষীয়ান অভিনেতা।

হলিউড ফিল্ম অ্যাওয়ার্ডস অনুষ্ঠানে সেরা অভিনেতা হওয়া দু’বার অস্কারজয়ী টম হ্যাঙ্কস এবং পরিবেশ-সচেতন তারকা লিওনার্ডো ডিক্যাপ্রিও হিলারিকে সমর্থন জানান। ডিক্যাপ্রিও বলেন, ‘কমেডিকে ট্র্যাজেডি হওয়া থেকে বিরত রাখার সুযোগ আছে আমাদের। তাই মঙ্গলবার হিলারিকে ভোট দিন।’

জাতীয় নিরাপত্তা, মানবাধিকার এবং নারী ও মেয়েদের ওপর প্রভাব বিস্তারকারী বিষয়গুলো সম্পর্কে হিলারির জ্ঞান ভালো বলে গত মে মাসে টাউন অ্যান্ড কাউন্টি ম্যাগাজিনের কাছে মন্তব্য করেন অভিনেতা ম্যাট ডেমন।

হিলারি ক্লিনটনের নির্বাচনী প্রচারণা শুরুর পর থেকেই তাকে সমর্থন জানাচ্ছেন স্ট্যান্ড-আপ কমেডিয়ান ও উপস্থাপিকা এলেন ডিজেনারেস। গত এক বছরে তার ‘দ্য এলেন ডিজেনারেস শো’ অনুষ্ঠানে একাধিকবার হাজির হয়েছেন হিলারি।

রকতারকা ব্রুস স্প্রিংস্টিন ফিলাডেলফিয়ার ইন্ডিপেন্ডেন্স হলে সংগীত পরিবেশনের সময় হিলারি ক্লিনটনকে সমর্থন জানান। তিনি বলেন, ‘বুদ্ধিমত্তা, অভিজ্ঞতা, প্রস্তুতি ও আমেরিকার প্রকৃত লক্ষ্যই হিলারির প্রার্থীতার ভিত্তি।’ একই শহরে ‘গেট আউট টু ভোট’ শোভাযাত্রায় অংশ নেন গায়িকা কেটি পেরি। জুলাইয়ে ডেমোক্রেটিক ন্যাশনাল কনভেনশনে তিনি ‘রোর’ ও ‘রাইজ’ গান দুটি পরিবেশন করেন। তরুণ প্রজন্মকে ৮ নভেম্বর ভোটদানের জন্য আহ্বান জানান কেটি।

হিলারির জন্য সমাবেশ করেছেন জেনিফার লোপেজও। লাতিন তারকা হিসেবে তিনি মনে করেন, যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকোর মধ্যে দেয়াল তৈরির চেষ্টায় মেতে উঠবেন ট্রাম্প। হিলারির পক্ষে মেক্সিকান অভিনেত্রী সালমা হায়েক লাতিন আমেরিকানদের ভোটের ওপর জোর দিয়েছেন। হিলারি ক্লিনটনকে সমর্থন জানিয়ে আরেক লাতিন তারকা ইভা লঙ্গোরিয়া ওশান ড্রাইভ ম্যাগাজিনকে বলেন, ‘আমি চাই তিনিই দেশ চালাবেন। তার মধ্যে নেতৃত্বের গুণ রয়েছে।’

নিউইয়র্কে হিলারি ক্লিনটনের অর্থতহবিল সংগ্রহের অনুষ্ঠানে ‘অ্যানি’ ছবির ‘টুমরো’ গানটি গেয়েছেন ‘সেক্স অ্যান্ড দ্য সিটি’ তারকা সারাহ জেসিকা পার্কার। এখানে বিশাল অঙ্কের অর্থ অনুদান দেন ‘প্রিটি ওম্যান’ তারকা রিচার্ড গিয়ার। গত সেপ্টেম্বরে টিভি তারকা কিম কারদাশিয়ান ও সংগীতশিল্পী কানইয়ে ওয়েস্ট দম্পতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জানান, দেশের জন্য হিলারি ক্লিনটনের লক্ষ্যের কথা শুনে তাদের ভালো লেগেছে।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষেও তারকাদের সমর্থন রয়েছে। তার পক্ষে ইউটিউবে ভিডিও পোস্ট করেছেন টিভি তারকা টিলা টেকিলা। গত জানুয়ারিতে আরেক টিভি তারকা জেসি জেমস দীর্ঘ পোস্টে ট্রাম্পকে সমর্থন জানান। ‘সেলেব্রিটি অ্যাপ্রেন্টিস’ অনুষ্ঠানে জেসি আশা প্রকাশ করেন, ট্রাম্প আমেরিকাকে আবার সেরা করতে সক্ষম হবেন।

দ্য রোলিং স্টোনস ম্যাগাজিনকে রকতারকা কিড রক মন্তব্য করেন, একজন ব্যবসায়ী দেশ চালালে তা চাঙ্গাই থাকবে। ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ক্ষুরধার ও গতিশীল হিসেবে উল্লেখ করেছেন অভিনেতা গ্যারি বুসি। আট বছর পর দেশটিতে তিনি পরিবর্তন আনতে সক্ষম হবেন বলেও মন্তব্য গ্যারির।

এ বছর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ব্যাল্ডউইন ভ্রাতৃদ্বয়কে বিভক্ত করেছে। অ্যালেক ব্যাল্ডউইন ও বিলি সমর্থন জানিয়েছেন হিলারি ক্লিনটনকে। কিন্তু বিলি ভাই অভিনেতা স্টিফেন ব্যাল্ডউইন প্রচারণা করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে। ব্রিটনি স্পিয়ার্স টুইটারে হিলারি ক্লিনটনের সঙ্গে তোলা ছবি পোস্ট করেও পরে তা মুছে ফেলেন।

অভিনেত্রী ও সমাজকর্মী সুজান সারান্ডন অবশ্য হিলারি কিংবা ট্রাম্প কাউকেই ভোট দেবেন না বলে জানিয়েছেন। বিবিসি নিউজনাইটকে তিনি বলেন, ‘দুর্নীতির যে রেকর্ড আছে হিলারি ক্লিনটনের তাতে তাকে সমর্থন জানানোর ক্ষেত্রে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পর্যাপ্ত ভীতিকর মনে হচ্ছে না।’ সুজান বরং গ্রিন পার্টির প্রার্থী ড. জিল স্টেইনকে ভোট দেবেন।

Check Also

রাখাইন সমুদ্রবন্দরের ৭০ শতাংশ দখলে নিচ্ছে চীন

মিয়ানমারের রাখাইনে গভীর সমুদ্রবন্দরের ৭০ শতাংশ অংশীদারিত্ব নিচ্ছে চীন। কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ এই বন্দর বিষয়ে ইতোমধ্যে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.